মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

     * বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড রাজনগর কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি লি:

    বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড ও রাজনগর কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি লি:এর মাধ্যমে গ্রাম পর্যায়ে ২০-৩০ জন কৃষক দরিদ্র ও অতি দরিদ্র সদস্য নিয়ে গ্রাম সংগঠন সৃষ্টি করে সংগঠনের সদস্যদের নিজস্ব পুঁজি গঠন আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের মাধ্যমে নিজেদেরকে সাবলম্বী করে তোলাই এক মাত্র উদ্দেশ্য। বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে সদাশয় সরকারের পক্ষে এক মাত্র সরকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে সংগঠন সৃষ্টি করে দারিদ্র বিমোচনে আর্থিক সহযোগিতা (ঋণপ্রদান) প্রদান করে যাচ্ছে।

 

ক্র: নং

প্রকার ভেদ

ঋণ তহবিল প্রাপ্ত পরিমান

মোট সমিতির সংখ্যা

মোট সচল সমিতির

মোট অসচল সমিতির

ঋণ গ্রহীতা সমিতি

ঋণ গ্রহীতা সদস্য সংখ্যা

কেএসএস

 

৩৭

১৯

১৮

১৩

২৫১

বিএসএস

 

০৯

০১

০৮

০১

২৫

 

মোট

২৩.১৩

৪৬

২০

২৬

১৪

২৭৬

         
 

 

বিতরনকৃত ঋণের পরিমান

আদায়যোগ্য

আদায়

আদায়যোগ্য হয়নি

মেয়াদউত্তির্ন

মোট বকেয়া ঋণরে পরিমান

মন্তব্য

১০

১১

১২

১৩

১৪

১৫

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

৩২.৪০

২২.৭৭

৫.১৭

৯.৬৩

১৭.৬০

২৭.২৩

     

  * ঘূর্ণায়মান পল্লী উন্নয়ন ঋণ তহবিল (আবর্তক কৃষি ঋণ) :

   পল্লী অঞ্চলের দরিদ্র জন গোষ্ঠীর স্ব-কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন তথা দারিদ্র বিমোচন হ্রাস করণের লক্ষ্যে ক্ষুদ্র ঋণ কর্ম সূচীর ব্যানারে “ঘূর্ণায়মান পল্লী উন্নয়ন ঋণ তহবিল” হিসেবে সরকার ২০০৩-২০০৪ অর্থ বছরে এক কর্মসূচী চালু করে। ব্যাংক ঋণের চড়া সুদ ও দায়বদ্ধতার বেড়াজাল থেকে দরিদ্র সমবায়ীদের অর্থনৈতিক মুক্তির কৌশল হিসেবে অত্যন্ত সহজ প্রক্রিয়ায় তুলনামূলক কম সেবা মূল্যের বিনিময়ে দরিদ্র কৃষক সমবায়ীদের মধ্যে কৃষি ঋণ বিতরণ করা হয়। উক্ত ঋণ তহবিল এর আওতায় অত্র উপজেলায় ২৩.১৩ লক্ষটাকা ঋণ তহবিল খাতে বরাদ্দ পাওয়া যায়।

      * সমন্বিত দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচী (সদাবিক) :

     বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড দরিদ্র মানুষের ভাগ্যন্নয়নে নিয়োজিত সরকারী পর্যায়ে একটি বৃহৎ প্রতিষ্ঠান। দারিদ্র বিমোচনের লক্ষ্যে বিগত ২০০৩-২০০৪ অর্থ বছর হতে এর কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে।পল্লী এলাকার বৃত্তহীন জনগোষ্ঠীকে (পুরুষ/মহিলা) অনানুষ্ঠানিক দল ভুক্ত করে আত্মকর্ম সংস্থান সৃষ্টি, জীবন যাত্রার গুনগত মান উন্নয়ন প্রশিক্ষণ ও সঞ্চয় জমার মাধ্যমে আয় বর্ধনমূলক কর্মকান্ড ভিত্তি ঋণ কার্যক্রম পরিচালনা, মানব সম্পদ উন্নয়ন, পরিবেশ সংরক্ষণ, মহিলাদের সচেতনতা ও ক্ষমতায়নের সুযোগ সৃষ্টি কর্মসূচীর মূল উদ্দেশ্য। ঋণ কার্যক্রম পরিচালনার বিপরীতে ঘূর্ণায়মান ঋণ তহবিল হিসাবে ৩৩.০০ লক্ষ টাকা পাওয়া যায়। যার মাধ্যমে ঋণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে।

  

    * পল্লী প্রগতি প্রকল্প (:প্র:প্র:) :

   দারিদ্র বিমোচনের লক্ষ্যে প্রকল্প ভুক্ত সদস্য/সদস্যাদের নিয়ে সংগঠন সৃষ্টি, সচেতনতা বৃদ্ধি, পেশা ভিত্তিক দক্ষতা বৃদ্ধি, আয় ও স্ব-কর্ম সংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে তাদের নিজস্ব পুঁজির মাধ্যমে সহায়ক হিসাবে ঋণ সুবিধা প্রদান প্রকল্পের অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য। উক্ত প্রকল্পের আওতায় রাজনগর উপজেলার ৭নং কামারচাক ইউনিয়নে বিগত ২০০২-২০০৩ অর্থ বছর হতে প্রকল্পটির কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। উক্ত কর্মসূচীর আওতায় অত্র উপজেলায় ঋণ তহবিল হতে ২৩.০০ লক্ষ টাকা পাওয়া যায়।

 

   * অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা তাদের পোষ্যদের জন্য প্রশিক্ষণ আত্মকর্ম সংস্থান কর্মসূচী:

 অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও তাদেরকে আত্মনির্ভরশীল করে তোলার মাধ্যমে দারিদ্র লাঘব করা এবং বিভিন্ন বৃত্তি মূলক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি পূর্বক আয় সঞ্চারন ও আত্মকর্ম সংস্থান মূলক প্রকল্প গ্রহনের উদ্বুদ্ধ করা। অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পোষ্যদের দারিদ্র লাঘব করার উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ সরকারের রাজস্ব বাজেটের আওতায় বিগত ২০০৪-২০০৫ অর্থ বছর হতে ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। উক্ত কর্মসূচীর আওতায় অত্র উপজেলায়:

 

তহবিল প্রাপ্তি

ঋণ গ্রহীতা সদস্য

বিতরনকৃত ঋণের পরিমান

আদায়যোগ্য

আদায়

আদায়যোগ্য হয়নি

মেয়াদউত্তির্ন

বকেয়া পরিমান

১,৭২,০০০/

৩০জন

৩,১১,০০০/-

১,৪৭,৩৫০/-

১,১০,২১০/-

১,৬৩,৬৫০/-

৩৭,১৪০/-

২,০০,৭৯০/-

  *গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প (সি ভি আর পি) :

  গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্প হচ্ছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর অন্য তম দারিদ্র বিমোচন প্রকল্প। এ প্রকল্পের লক্ষ হচ্ছে বাংলাদেশের জলবায়ু দূগর্ত ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্নমূল পরিবারের জন্য জমি, বাসস্থান,  প্রশিক্ষণ, ঋণ, স্বাস্থ্য সেবা, পরিবার পরিকল্পনা, আয় বর্ধক কার্যক্রম, বিশুদ্ধ পানির সংস্থান, যাতায়াত ব্যবস্থার উন্নয়ন ও বৃক্ষরোপনের সুবিধা প্রদান করে দারিদ্র বিমোচন করা। পুনর্বাসিত পরিবার গুলোকে নিয়ে অনানুষ্ঠানিক দল গঠন করে নিজস্ব পুঁজি গঠন, ঋণ সহায়তা প্রদান ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেদেরকে স্বম্ভবর স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলাই এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য, উক্ত প্রকল্পের আওতায় অত্র উপজেলায়:

 

 

তহবিল প্রাপ্তি

ঋণ গ্রহীতা সদস্য

বিতরনকৃত ঋণের পরিমান

আদায়যোগ্য

আদায়

আদায়যোগ্য হয়নি

মেয়াদউত্তির্ন

মোট বকেয়া পরিমান

৩,০০,০০০

১১জন

৭৫,০০০/-

২৮,৫৪০/-

২৮,৫৪০/-

৪৬,৪৬০/-

-

৪৬,৪৬০/-

* অপ্রধান শস্য উৎপাদন প্রকল্প :

 বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি)আওতায়‍‌‌‘দারিদ্রবিমোচনের লক্ষ্যে অপ্রধান শস্য উৎপাদন সংরক্ষণ, প্রক্রিযাকরণ ও বাজারজাতকরণ কর্মসূচি (২য় পর্যায়) শীর্ষক প্রকল্পটি জুলাই/২০১১১ইং হতে জুন/২০১৪ইং পযর্ন্ত প্রকল্পটি বাস্থবায়িত হচ্ছে।

  লক্ষ্য: অপ্রধান শস্য উৎপাদন উৎসাহ, পুজির যোগান এবং প্রশিক্ষণসহ অন্যান্য সহায়ক সহযোগিতা প্রদান করা হলে অপ্রধান শস্য উৎপাদন বৃদ্ধি করা সম্ভব। ফলে এক দিকে আমদানি নির্ভরতা সংকোচন সহ খাদ্য নিরাপত্তার বাড়তি বলয় সৃষ্টি হবে। অন্য দিকে কৃষক মানোন্নয়নসহ খাদ্যভাস পরিবর্তরনরে বহুবধি সৃষ্টি হবে। অপ্রধান শস্য উৎপাদন বৃদ্ধি, সঠিক সংরক্ষণ ও বাজারজাতকরণের মাধ্যমে আয় বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান ও দারিদ্র বিমোচন প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য।

 

  * একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প:

  স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প গুলির অন্যতম একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প বাংলাদেশের ৬৪ টি জেলার ৪৮২ টি উপজেলার ১৯২৮ টি ইউনিয়নের ৩৪৭০৪ টি গ্রামে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। সামগ্রিক উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রতিটি বাড়িকে আয় বর্ধনমূলক কর্মকান্ডের কেন্দ্র বিন্দু হিসেবে এবং প্রতিটি গ্রাম সংগঠনকে অর্থনৈতিক ইউনিট হিসেবে কার্যকর করার মাধ্যমে সমন্বিত গ্রাম উন্নয়ন নিশ্চিত করা এ প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য। গ্রাম সংগঠন সৃষ্টির মাধ্যমে স্থানীয় সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার, সংগঠনের সদস্যদের চাহিদা অনুসারে উন্নত সেবা প্রদান ও প্রাপ্তির ব্যবস্থা গ্রহন এবং গ্রামীন জনগনের সার্বিক মান উন্নয়নের লক্ষ্যে দরিদ্র বিমোচনে সকল যৌক্তিক উপাদান গুলিকে সন্নিবেশিত করে সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের মাধ্যমে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প গ্রহন করা হয়েছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রাম সংগঠনের সদস্য/সদস্যাদের স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে সাপ্তাহিক সঞ্চয়জমা, সঞ্চয় জমার বিপরীতে প্রকল্প হতে উৎসাহ সঞ্চয় প্রদান, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সচেতনতা বৃদ্ধি ও ঋণের মাধ্যমে (নাম মাত্র সেবা মূল্যে) অর্থনৈতিক সহযোগিতা প্রদান করা ও এ প্রকল্পের আওতাভুক্ত।

    

     একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প রাজনগর মৌলভীবাজার উক্ত উপজেলায় ০৪ টি ইউনিয়নে ৩৬ টি সমিতি গঠন করা হয়েছে । মোট সদস্য সংখ্যা ১৫৬২ জন। জুন ২০১৩ইং পযর্ন্ত সঞ্চয় জমা আছে ৩১,০০,০০০/-(একত্রিশ লক্ষ টাকা)এবং ঋণ বিতরণ করা হয়েছে ৫৩৫ জনের মধ্যে ৩৯.৫৬ লক্ষটাকা।

 

      একটিবাড়িএকটিখামারপ্রকল্পসম্পদহস্থান্তর:

 

ক্র: নং

ইউনিয়নেরনাম

সমিতি গঠন

সদস্যসংখ্যা

সম্পদহস্তান্তর

মন্তব্য

গাভী/বকনা

টিন

নলকূপ

মোট

০১

ফতেপুর

০৯

৪৩০

২৫

১১

৩৮

 

০২

পাঁচগাঁও

০৯

৩৭২

২৫

৩৮

০৩

টেংরা

০৯

৩৬০

২৫

৩৪

০৪

মনসুরনগর

০৯

৪০০

২৫

৩৪

মোট

৩৬

১৫৬২

১০০

৩৬

১৪৪